পশ্চিমবঙ্গ নিয়ে দিবা স্বপ্নে বিভোর কেদ্রীয় বিজেপি

বিজেপি আগামী লোকসভা নির্বাচনে ৩৫০টি আসন জয়ের লক্ষ্য নিয়েছেন, এর মধ্যে পশ্চিমবঙ্গের ২২টি আসন রয়েছে, জানিনা কারা অমিত শাহকে এই সংখ্যা দিয়েছে যে পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি এতগুলি আসন জিততে পারে, না এই সোনার পাথরবাটি-সরূপ বক্তব্যকে নস্যাৎ করার জন্য কোনো রাজনৈতিক ব্যক্তি হবার প্রয়োজন নেই, বিগত নির্বাচনগুলির ফলাফল দেখলেই বোঝা যাবে কোন দল কত জলে দাড়িয়ে আছে |

রাজ্যে বিজেপির নেতারা তো কেন্দ্রীয় নেতাদের কাছে মুখ পুড়িয়ে বসে রয়েছেন মিথ্যা রিপোর্ট দিয়ে, ৫০০০০ হাজার বুথ ছেড়ে দিন, ৪০০০ বুথেও পৌছতে পারেনি বিজেপির বিস্তারক দল, অথচ কেন্দ্রীয় নেতাদের মিথ্যা রিপোর্ট দিয়েছিলেন ৫০০০০ হাজার বুথের, জানি না কার উর্বর মস্তিস্ক প্রসূত এই পরিকল্পনা, ভাবের ঘরেই চুরি, কেন্দ্রীয় নেতাদের বোকা ভেবে এই রকম বোকামি কেউ করে ?

কেন্দ্রীয় নেতারা যদি রাজ্যে বিজেপির নেতাদের রিপোর্ট দেখে যদি লোকসভায় পশ্চিমবঙ্গ থেকে ২২টি আসন জেতার মানচিত্র তৈরী করে থাকেন তাহলে তাদেরকেও নমস্কার, তাদেরকে বলি দয়া করে বাস্তবের রুক্ষ জমিতে পা রাখুন, বেশী কষ্ট করতে হবে না, সাম্প্রতিক নির্বাচনগুলিতে বুথ ভিত্তিক ভোট শতাংশে একবার নজর দিলেই বুঝতে পারবেন পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি কোথায়, যে রাজ্যে বিজেপি পতাকা লাগানোর লোক পায় না, যে রাজ্যে বিজেপি থেকে টাকা দিয়েও বুথে লোক বসাতে পারে না, যে রাজ্যে সমর্থকদের রাজনৈতিক সংঘর্ষে কতজন নিহত ও কতজন আহত হয়েছে তার কোনো হিসেব  রাজ্যে বিজেপির নেতাদের কাছে নেই, তারা জিতবে ২২ টি লোকসভা আসন?

টিভিতে মুখ দেখিয়ে যদি নির্বাচনে জেতা যেত, তাহলেও না হয় কথা ছিল, মাননীয় অমিত শাহজী কে অনুরোধ, দয়া করে রাজ্যে বিজেপির নেতাদের রিপোর্ট না দেখে আপনি বাস্তবের রুক্ষ জমিতে পা রাখুন, তাহলেই বুঝতে পারবেন বাস্তব চিত্র, আগামী নির্বাচনে বিজেপির ভোট লোকসভা ভোটে বাড়বে ঠিকই এবং বর্তমান রাজ্যে বিজেপির নেতাদের উপর নির্ভর করে চললে তৃণমূলের ভোট ৩৩টি  লোকসভা আসনে ৫০ শতাংশের বেশী থাকবে, মিলিয়ে নেবেন কথাটা |

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *